সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Dharamshala-shimla-tour.jpg

স্থান পরিচিতি ঘুরে আসুন ভারতের ধর্মশালা

ঢাকা থেকে ধর্মশালায় যাওয়ার সরাসরি কোন ফ্লাইট নেই। সেক্ষেত্রে আপনাকে ঢাকা থেকে প্রথমে দিল্লি যেতে হবে। তারপর দিল্লি থেকে ধর্মশালার ফ্লাইট ধরতে হবে।

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০১৬ এর বাছাইপর্বের ম্যাচ আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ধর্মশালা এখন একটি পরিচিত নাম। তাছাড়া ভারত-পাকীস্তান ম্যাচ নিয়ে উত্তেজনা ছড়ানোয় ধর্মশালা সারাবিশ্বেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। তাই পাঠকদেরও নিশ্চয় এই ধর্মশালা নিয়ে বিস্তারিত জানবার আগ্রহ তৈরি হয়েছে।পাঠকদের আগ্রহ মেটাতে  ভারতের ধর্মশালা নিয়ে এই আয়োজন।

ধর্মশালা উত্তরভারতের হিমাচল প্রদেশ রাজ্যের কাংরা জেলার একটি শহর।এটি সমুদ্র সমতল হতে প্রায় ৪৭৮০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত। ২০০১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী এই শহরটিতে প্রায় উনিশ হাজার লোক বাস করে। এটি পূর্বে ভাগসু নামে পরিচিত  ছিলো।ধর্মশালা পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় জায়গা। প্রতি বছর কয়েক হাজার পর্যটক এখানে ভ্রমণ করতে যান।পাহাড়,হৃদ আর চিনাব নদী ঘেরা সুন্দর ও নৈসর্গিক শহর ধর্মশালা। এখানে সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে প্রায় সাত  হাজার ফিট উচ্চতায় ক্রিকেট স্টেডিয়াম অবস্থিত।

ভারত উপমহাদেশ বিভক্ত হওয়ার আগে ধর্মশালা পাঞ্জাব প্রদেশের অধীন ছিলো এবং লাহোর থেকে শাসিত হতো। ১৯০৫ সালে কাংরা’য় ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হানে এবং প্রায় বিশ হাজার লোক নিহত হয়।

যেভাবে যাবেনঃ

ঢাকা থেকে ধর্মশালায় যাওয়ার সরাসরি কোন ফ্লাইট নেই। সেক্ষেত্রে আপনাকে ঢাকা থেকে প্রথমে দিল্লি যেতে হবে। তারপর দিল্লি থেকে ধর্মশালার ফ্লাইট ধরতে হবে। ধর্মশালায় একটি এয়ারপোর্ট আছে,যেটি গাগগল নামে পরিচিত,আর এটি শহর থেকে বার কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ট্রেনে করেও ধর্মশালায় যাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে দিল্লির পাঠানকোট থেকে ট্রেনে কাংরা ভেলি রেলওয়ে অতিক্রম করে আপনি কাংরা পৌঁছতে পারবেন। এই জন্য আপনাকে চুরানব্বই কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে হবে। তারপর স্টেশনে নেমে বাস অথবা ট্যাক্সিতে করে ধর্মশালা যেতে পারবেন।

কেন যাবেন ধর্মশালাঃ 

ধর্মশালায় ব্রিটিশ রাজপরিবারের জন্য নির্মিত রাজকীয় প্রাসাদ রয়েছে,যেটির নাম ‘ক্লাউডস ইন ভিলা’। এই শহরটি ছিলো তিব্বতীয় ধর্মগুরু দালাইলামার বাসস্থান।মোদি’র নেতৃত্বে ধর্মশালা একটি স্মার্ট শহর হিসেবে গড়ে উঠছে। ধর্মশালা স্টেডিয়ামটি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব এর ঘরোয়া মাঠ হিসেবে পরিচিত। এখানে আইপিএল সহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচের আয়োজন হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের ভারত-পাকীস্তান ম্যাচ আয়োজন নিয়ে ধর্মশালায় উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। এখানকার তরুন জনপ্রিয় এমপি আনুরাগ ঠাকুর যিনি রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক।তার প্রচেষ্টায় ধর্মশালায় ভারত-পাকীস্তান ম্যাচ  এর আয়োজন হতে যাচ্ছিল।

কিন্তু রাজ্যের বর্তমান কংগ্রেসীয় মূখ্যমন্ত্রী বীরভদ্র পুলিশের কাছে এই ম্যাচ নিয়ে জঙ্গি হামলার আশংকা করেছেন। পুলিশ রিপোর্ট গ্রহণ করায় পিসিবি ধর্মশালায় ম্যাচ খেলতে আপত্তি জানিয়েছে। সেই কারণেই আইসিসি এখন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সরিয়ে কলকাতার ইডেনে নিয়ে গেছে।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

ভারত, ধর্মশালা, স্টেডিয়াম, পাহাড়, ট্রেন